শিরোনাম

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে তুঁত ফল পাতা ও ডাটার কার্যকারিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩১ মে, ২০২২ ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে তুঁত ফল পাতা ও ডাটার  কার্যকারিতা

ডায়াবেটিস নিয়ে অনেকেই আতঙ্কিত। দেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যাও বেড়েই চলেছে। ডায়াবিটিস একটি মারণ অসুখ। এতে শরীরে গ্লুকোজের মাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি হয়ে যায়। বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ মানুষই টাইপ 2 ডায়াবেটিসে ভুগছেন। এই জন্য ব্যায়াম এবং স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু অনেকেই জানেন না, গ্রামের পরিচিত একটি গাছ ‘তুঁত’ গাছের ফল, পাতা ও ডাটা ডায়াবেটিস রোগীদের ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে তুঁতও ভালো কাজ করে। NCBI-এর রিপোর্ট অনুসারে, তুঁত রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে

সূত্রমতে, ডায়াবেটিস সাধারণত দুই ধরনের। টাইপ ১ ডায়াবেটিস ও টাইপ ২। টাইপ ১ ডায়াবিটিসের ক্ষেত্রে আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে ইনসুলিন উৎপন্ন হয় না। অন্যদিকে, টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে আক্রান্ত ব্যক্তির ইনসুলিন উৎপন্ন হলেও তা সঠিকভাবে সঠিকভাবে কাজ করে না। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে এই রোগের লক্ষণ গোড়া থেকে ধরতে পারলে প্রতিকার করা সম্ভব।

রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে গেলে তা নিয়ন্ত্রণ করা খুবই জরুরি। চিকিৎসকদের মতে এই রোগের হাত ধরেই আমাদের শরীরে আসে জটিল রোগ। এই জন্য ব্যায়াম ও স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে তুঁত গাছের ভূমিকা অনেক। NCBI-এর রিপোর্ট অনুযসারে, তুঁত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণেরও ক্ষমতা রাখে, কেমন করে এই ভেষজটি আপনার কাজে লাগাবেন জেনে নিন।

তুঁত আসলে কী?: তুঁত এক ধরনের ফল, যা গ্রামাঞ্চলে সহজেই পাওয়া যায়। তুঁতের (Mulberry) বৈজ্ঞানিক নাম Morusnigra/Morus Rubra। তুঁত আমাদের রেশম শিল্পের কাজে অপরিহার্য। যদিও এই গাছের আদিবাস চিনে। এখন ভারত, বাংলাদেশ, এশিয়া, আফ্রিকা, ইউরোপ ও আমেরিকার বিভিন্ন দেশে তুঁতফলের চাষ হয়ে থাকে। তুঁতফলের জুস, জ্যাম জেলি হয়। এর ফল দেখতে খুব সুন্দর। বসন্তের শুরুতে গাছে নতুন পাতা আসে। সারা বছরই ফল পাওয়ার যায়। এর ফল টক-মিষ্টি এবং রসালো। মনে করা হয় যে তুঁত খেলে ডায়াবিটিস-সহ অনেক রোগের নিরাময় হতে পারে।


শাহটুট ফল ফাইবার, ভিটামিন সি এবং আয়রন-সহ অনেক পুষ্টিতেই সমৃদ্ধ। প্রোটিন, ফাইবার, ভিটামিন সি, আয়রন, ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন এ-এর মতো উপাদানও এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়।

​ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এই ফল: কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে সাদা তুঁত বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারে কার্যকরী। গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে যে এটি রক্তে শর্করা ও কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি ক্যানসার কোষ বৃদ্ধিতেও বাধা দেয়।

তুঁত কী ভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে: টাইপ 2 ডায়াবিটিসে আক্রান্ত ২৪ জনের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ৩ মাস ধরে প্রতিদিন ৩ বার ১,০০০ মিলিগ্রাম তুঁত পাতার নির্যাস গ্রহণ করলে শর্করার মাত্রা অনেকটাই কমে যায়। এটি হিমোগ্লোবিন A1C এর মাত্রাও উন্নত করে, যা রক্তে উচ্চ শর্করা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।


​এর পাতাও কার্যকরী: সমীক্ষা অনুসারে, যাঁদের ১২ সপ্তাহ ধরে তুঁত পাতার রস দেওয়া হয়েছিল তাঁদের রক্তে শর্করার মাত্রায় উল্লেখযোগ্য উন্নত হয়েছে। একটি প্রাণী গবেষণায় আরও দেখা গিয়েছে ইঁদুরকে তুঁত পাতা দেওয়া পর তাদের অগ্ন্যাশয়ের বিটা কোষের কার্যকারিতা উন্নত করতে সাহায্য করে, যা ইনসুলিন উতৎপাদনের জন্য দায়ী।

সূত্র:ইন্টারনেট।




লাইফস্টাইল - এর আরো খবর