- Advertisement -
হোম রাজনীতি খালেদা জিয়া এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি

খালেদা জিয়া এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি

- Advertisement -

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মঙ্গলবার রাতে বসুন্ধরার আবাসিক এলাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, সিটি স্ক্যান ও ইকো করার পর চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে (খালেদা জিয়া) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ‘আমরা অ্যাডমিশন দিয়ে রেখেছে এই কারণে যে আমাদের আরও কিছু পরীক্ষা বাকি রয়ে গেছে। সে টেস্টগুলো আমরা কালকে করব এবং সে টেস্ট রিপোর্ট রিভিউ করে আমরা আবার উনাকে বাসায় ফিরিয়ে নিয়ে যাব।’

তিনি আরও বলেন, ‘আসলে আমরা টেস্ট রিপোর্টগুলো দেখে তারপর ব্যবস্থা নিব। উনার ফুসফুস খুব সুন্দর পরিষ্কার আছে।

খালেদা জিয়াকে ১২ দিনের মধ্যে আবার সিটি স্ক্যান করানোর জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়। মঙ্গলবার রাত ৯টা ৩৫ মিনিটে গুলশানের ফিরোজা বাসভবন থেকে বের হয়ে ১০টার দিকে হাসপাতালে পৌঁছান তিনি। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের প্রধান অধ্যাপক এফ এম সিদ্দিকী এবং অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন ও আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এর আগে খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় কয়েকজন চিকিৎসক ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন হাজির হন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের এক কর্মকর্তা বলেছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের সিটি স্ক্যানসহ কয়েকটি পরীক্ষার জন্য এভারকেয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। হাসপাতালে এ ব্যাপারে সব ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানোর পর আবার তাকে গুলশানের বাসায় নেয়া হবে।

খালেদা জিয়ার করোনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে গত ১১ এপ্রিল। গুলশানের বাসভবন ফিরোজার দ্বিতীয় তলায় একটি রুমে তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।

গত ১৫ এপ্রিল একই হাসপাতালে সিটি স্ক্যান করানো হয় বিএনপি নেত্রীর। সে রিপোর্ট ভালো আসে বলে বিএনপি থেকে জানানো হয়েছিল।

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও সংবাদ

- Advertisement -