- Advertisement -
হোম অর্থনীতি সবজির বাজার স্থিতিশীল, বেড়েছে মুরগির দাম

সবজির বাজার স্থিতিশীল, বেড়েছে মুরগির দাম

- Advertisement -

রাজধানীর বাজারগুলোতে সবজির সরবরাহ পর্যাপ্ত থাকায় সবজির দাম গত সপ্তাহের মতো স্থিতিশীল রয়েছে। তবে ক্রেতা ও বিক্রেতারা বলছেন দাম বেড়েছে মুরগির। শুক্রবার রাজধানীর খিলগাও, বাসাবোসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে এমন তথ্য জানা যায়।

বাজারে প্রতিকেজি পেপে বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়। বেগুন, চিচিঙ্গা, ঝিঙ্গে, পটল, শষাসহ অধিকাংশ সবজিই বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে পঞ্চাশ টাকা কেজিতে। এছাড়া কাচা মরিচ ৫০ থেকে ৬০ টাকা, কচুর লতি ৬০ টাকা, করল্লা ৬০ টাকা আলু ২০ টাকা দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। প্রতিপিছ লাউ ও চালকুমড়া বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা দরে। লেবু প্রতি হালি ২০ থেকে ৩০ টাকা, আটি প্রতি পালং শাক ১৫ টাকা, লালশাক ১৫ টাকা, পুঁইশাক ২০ টাকা এবং লাউশাক ২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদেকে রাজধানীর বাজারগুলোতে বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে ১০-১৫ টাকা বেড়েছে। পাশাপাশি পাকিস্তানি মুরগির দামও প্রতিটিতে বেড়েছে ১৫-২০ টাকা।

ব্রয়লার মুরগি কেজিপ্রতি ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে যা বিক্রি হয়েছে ১৩০-১৪০ টাকা দরে। আবার মাঝারি সাইজের পাকিস্তানি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৭৫ টাকা এবং বড় সাইজের মুরগি ২৪০-২৬০ টাকা দরে। যা গত সপ্তাহের তুলনায় ১০ থেকে ২০ টাকা বেশী।

অন্যদিকে, মুদি পণ্যের দামেরও তেমন কোনো পরিবর্তন নেই। কেজিপ্রতি দেশি মসুর ডাল (দেশি) ১১০ টাকা, ভারতীয় মসুর ডাল ৯০ টাকা, মুগ ডাল (দেশি) ১০৫ টাকা, ভারতীয় মুগ ডাল ৯০ টাকা, মসকলাই ১২০ টাকা এবং ছোলা ৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

মাছের বাজার ঘুরে দেখা যায়, আকার ভেদে প্রতিকেজি কাতলা মাছ ৩০০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা, রুই মাছ ২৫০ টাকা থেকে ২৮০ টাকা, সরপুঁটি ৩০০ টাকা থেকে ৪৫০ টাকা, তেলাপিয়া ১২০ থেকে ১৪০ টাকা, সিলভার কার্প ১৩০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও সংবাদ

- Advertisement -