- Advertisement -
হোম জাতীয় বনানী কবরস্থানে কবরীকে দাফন

বনানী কবরস্থানে কবরীকে দাফন

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বনানী কবরস্থানে অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার বেলা ১২টা ৫ মিনিটে কবরীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় তার গুলশানের বাসায়। সেখানে আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীরা শেষবারের মতো দেখেন কবরীকে। সেখানে আধাঘণ্টা রেখে বনানী কবরস্থানে নেয়া হয় দাফনের জন্য।

সেখানেই তার প্রথম ও একমাত্র জানাজা শেষে জোহরের নামাজের পর বনানী দাফন সম্পন্ন হয় কবরীর। এর আগে রাষ্ট্রীয় সম্মান হিসেবে দেয়া হয় ‘গার্ড অব অনার’।

শেষ শ্রদ্ধা জানাতে উপস্থিত হন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, শিল্পী সমিতি, পরিচালক সমিতির নেতারা। তবে করোনার কারণে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য সুযোগ দেয়া হয়নি।

কবরী অভিনীত প্রথম সিনেমা সুতরাং মুক্তি পায় ১৯৬৪ সালে, এখন ২০২১ সাল। ৫০ বছরের বেশি সময় ধরে সিনেমায় ছিলেন কবরী। শেষ সময়েও ব্যস্ত ছিলেন চলচ্চিত্র পরিচালনায়। বাংলা সিনেমার ইতিহাস, এর পরিবর্তন, সবই দেখেছেন কবরী। এই সব অভিজ্ঞতা নিয়ে চিরনিদ্রায় গেলেন কিংবদন্তি এই অভিনেত্রী। যেন একটি অধ্যায়, একটি ইতিহাস ঘুমিয়ে গেল তার সঙ্গে।

শুক্রবার রাত ১২টা ২০ মিনিটে করোনায় আক্রান্ত হয়ে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে মারা যান কবরী। শনিবার সকালে হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ফারুক আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তার ফুসফুসের একশভাগই সংক্রমিত হয়েছিল। আমরা মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে তার চিকিৎসা করছিলাম।’

ডায়াবেটিক ছাড়া আর তেমন কোনো শারীরিক সমস্যা ছিল না বলে জানান পরিচালক। তবে কবরী করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছিলেন কি না সে তথ্য জানা ছিল না তাদের।

করোনায় আক্রান্ত হয় ৫ এপ্রিল রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন কবরী। ৮ এপ্রিল তাক নেয়া হয় শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে। ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় তাকে নেয়া হয় লাইফ সাপোর্টে। সেই অবস্থা থেকে আর ফিরলেন না তিনি।#

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

আরও সংবাদ

- Advertisement -