১২২ প্রতিষ্ঠানে চিঠি প্রেরণ

রাজারবাগ পীরের অবৈধ সম্পদের খোঁজে দুদক

জাগো কণ্ঠ ডেস্ক

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

রাজারবাগ পীরের অবৈধ সম্পদের খোঁজে দুদক
রাজারবাগ দরবার

রাজধানীর রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর দিল্লুর রহমানের অবৈধ সম্পদের খোঁজে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এরই অংশ হিসেবে তার সম্পদের তথ্য চেয়ে সরকারি-বেসরকারি ৫৮টি ব্যাংকসহ ১২২ টি প্রতিষ্ঠানে চিঠি পাঠিয়েছে সংস্থাটি।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সংস্থাটির সচিব মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার এসব তথ্য জানান। দুদকের চিঠি দেওয়া ১২২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে সরকারি-বেসরকারি ৫৬টি ব্যাংক, দেশের ৬৪ জেলা রেজিস্ট্রার, বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় ও বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশন।

দুদক সচিব বলেন, কোথায় কোথায় জমি দখল হয়েছে, কিংবা অবৈধ সম্পদ কোথায় রয়েছে, তা খতিয়ে দেখার জন্য এসব চিঠি দেওয়া হয়েছে। দুদকের একটি টিম ইতোমধ্যে রাজারবাগ এলাকা পরিদর্শন করেছে।

দুদক সূত্রে জানা যায়, ধর্মের নামে মানুষকে ধোঁকা দিয়ে সাত হাজার একর জমি দখলের অভিযোগে রাজারবাগ শরিফের পীর দিল্লুর রহমানের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু হয়।বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর দিল্লুর রহমানসহ তার অনুসারীরা কমপক্ষে ৮০০টি ভুয়া মামলা করেছেন। এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ৪৯টি মামলা দেওয়ার তথ্যও রয়েছে। এসব মামলার পেছনে রয়েছে সাত হাজার একর জমি ও রাবার বাগান দখল। পীরের পক্ষে তার অনুগতরা এসব মামলা দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরীফের সব সম্পদের বিষয়ে তদন্ত করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) এ তদন্ত করতে বলা হয়। এছাড়া তাদের কোনো জঙ্গি সম্পৃক্ততা আছে কি না তা তদন্ত করতে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটকে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে আবেদনকারীদের মামলা প্রতারণামূলক কি না, সিআইডিকে এ বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন আদালত। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। পরে এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন রাজারবাগ পীরের আইনজীবীরা।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ পীর ও তার চক্র কর্তৃক দেশব্যাপী দায়ের গায়েবি মামলার তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করে ভুক্তভোগী ৮ পরিবার। ৭ বছরের শিশু, মহিলা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, মাদ্রাসার শিক্ষক, ব্যবসায়ীসহ ৮ জন ভুক্তভোগী আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী শিশির মনির এ রিট দায়ের করেন।

আবেদনে রাজারবাগ পীর ও তার চক্র দ্বারা দেশব্যাপী আবেদনকারীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর, মানহানিকর মামলা দায়েরের বিরুদ্ধে কেন আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে না- এই মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে। এছাড়া রাজারবাগ শরীফ ও পীর দিল্লুর রহমানের সম্পত্তি এবং ব্যাংক হিসাব তদন্ত করে একটি প্রতিবেদন দাখিল করতে দুদক চেয়ারম্যানের প্রতি নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

আবেদনকারীদের বিরুদ্ধে সারা দেশে করা মামলার বিষয়ে একটি তদন্ত চাওয়া হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তা দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা চেয়েছেন। রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব ও আইজিপিসহ ২০ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।




স্পেশাল রিপোর্ট - এর আরো খবর

দুই মেয়েকে নিয়ে এক মায়ের সংগ্রাম

দুই মেয়েকে নিয়ে এক মায়ের সংগ্রাম

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

মেট্রোরেল বদলে দিয়েছে ঢাকাবাসীর জীবনচিত্র

মেট্রোরেল বদলে দিয়েছে ঢাকাবাসীর জীবনচিত্র

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন